ওজন কমাতে কার্যকর যে জুস

ওজন কমানোর কথা ভাবছেন? জুস পান করে ওজন কমানোর ধারণা একেবারে নতুন নয়। অবশ্য শুধু জুস খেয়ে ওজন কমানো সম্ভব নয়। দৈনন্দিন খাবারের সঙ্গে জুস খেলে ওজন কমানোর প্রক্রিয়া দ্রুততর হয়। এ ছাড়া সতেজ জুস খেলে শরীরে খনিজ, ভিটামিন, আঁশ ও অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যুক্ত হয়। ওজন কমানোর জন্য গাজর, আনারস, শসা, বেদনা ও আমলকীর জুস খেতে পারেন। তবে কার্যকর জুসের তালিকায় প্রথম দিকে জায়গা করে নেবে করলার জুস।

করলার জুসের গুণাগুণ:
১. ১০০ গ্রাম করলায় ক্যালরি মাত্র ১৭! তাই শরীরে ক্যালরি গ্রহণ না করে দ্রুত ওজন কমাতে নিয়মিত করলার জুস খেতে পারেন।

২. স্বাদে তিতকুটে হলেও এতে আছে ভিটামিন এ, বি ও সি।

৩. করলার জুসে আছে বিটা-ক্যারোটিন, লুটেইনসহ খনিজ উপাদান আয়রন, জিঙ্ক, পটাশিয়াম, ম্যাংগানিজ ও ম্যাগনেশিয়াম।

৪. ডায়াবেটিসসহ বিভিন্ন রোগের চিকিৎসায় করলার ভেষজগুণও রয়েছে।

৫. অগ্ন্যাশয় ক্যানসার প্রতিরোধ করতে পারে।

৬. করলার আয়রন হিমোগ্লোবিন তৈরি করতে সাহায্য করে।

৭. দাঁত ও হাড় ভালো রাখে।

৮. দৃষ্টিশক্তি ভালো রাখতে এবং চোখের সমস্যা সমাধানে করলার বিটা ক্যারোটিন খুবই উপকারী।

৯. করলার রস কৃমিনাশক।

১০. রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখে।

যেভাবে তৈরি করবেন জুস : কাঁচা করলা নিয়ে টুকরা করে কাটতে হবে। বিচিগুলো সরিয়ে ফেলতে হবে। ব্লেন্ডারে জুস তৈরি করে নিতে হবে। যাঁরা লবণ খান, হালকা লবণ দিয়ে নিতে পারেন। তথ্যসূত্র: এনডিটিভি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *