মাইগ্রেনের ব্যথায় ঘরোয়া চিকিৎসা

ডেক্সঃ-
মাইগ্রেন হচ্ছে এক বিশেষ ধরনের মাথাব্যথা। মাইগ্রেনের ব্যথা একবার শুরু হলে তা সহ্যের সীমা অতিক্রম করেছে।
বমি না হওয়া পর্যন্ত এ ব্যথা হয়। তবে বমি হওয়ার পড়ে ব্যথা ধীরে ধীরে কমতে থাকে।

এতে মস্তিষ্কে স্বাভাবিক রক্তপ্রবাহ ব্যাহত হয়। এই ব্যথা মাথার এক পাশ থেকে শুরু হলেও পরে তা পুরো মাথায় ছড়িয়ে পড়ে। এই ধরনের ব্যথা হলে বুঝতে হবে আপনার মাইগ্রেন অ্যাটাক হয়েছে। মাথা ব্যথার সঙ্গে বমি এবং বমি বমি ভাব রোগীর দৃষ্টিবিভ্রম হতে পারে।
জিহ্বা পুড়ে গেলে করণীয়

মাইগ্রেনের ব্যথায় অনেকেই কষ্ট পান। তবে কিছু পদ্ধতি অবলম্বন করলে এ ব্যথা নিয়ন্ত্রণে রাখা সম্ভব। আসুন জেনে নেই হঠাৎ যদি আপনার মাইগ্রেনের ব্যথা শুরু হতে পারে।ব্যথা শুরু হওয়ার পড়ে অনেক সময় সঙ্গে সঙ্গে ডাক্তারের কাছে যাওয়া সম্ভব নয় না।

তাই এ সময়ে ঘরোয়া উপায়ে ব্যথা নিয়ন্ত্রণ করা যেতে পারে।

বিট লবণ

মাইগ্রেন ব্যথা দূর করার সহজ এবং কার্যকরী একটি উপায় হলো বিট লবণ। বিট লবণ মাইগ্রেনের ব্যথা দূর করতে বেশ কার্যকরী। এর জন্য বেশি কিছু করার প্রয়োজন পড়বে না।

যা যা লাগবে

অর্ধেকটা লেবুর রস

বিট লবণ

যেভাবে তৈরি করবেন

প্রথমে অর্ধেকটা লেবুর রস করে নিন।এর সঙ্গে এক টেবিল চামচ উচ্চ পরিবেশিত ঘনত্ব সম্পন্ন বিট লবণ মিশিয়ে নিন।

সাধারণত অর্ধেকটা লেবুর রসের সাথে বিট লবণ মেশানো হয়ে থাকে। তবে আপনি চাইলে এক গ্লাস লেবুর রসের সঙ্গে বিট লবণ মিশিয়ে নিতে পারেন।মাইগ্রেনের ব্যথার সময় এই পানীয়টি খেতে পারেন।

সতর্কতা

যাদের উচ্চ রক্তচাপের সমস্যা আছে বা অন্য কোনো কারণে অতিরিক্ত লবণ খাওয়া মানা, তারা অবশ্যই ডাক্তারের সঙ্গে কথা বলে নিন এই উপায়টি অনুসরণ করার আগে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


Notice: Undefined offset: 0 in /home/sporungs/hilibarta.com/wp-content/plugins/cardoza-facebook-like-box/cardoza_facebook_like_box.php on line 937